ময়না দ্বীপ ময়মনসিংহ ভ্রমণ গাইড (Moyna Deep)

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

ময়না দ্বীপ (Moyna Deep) ময়মনসিংহ শহর থেকে মাত্র ৬ কিলোমিটার দূরে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে ব্রহ্মপুত্র নদীতে জেগে উঠা চর বা ব-দ্বীপ।এখানে একদিকে ব্রম্মপুত্র নদের স্বচ্ছ জল ধারা এবং অন্য দিকে বাণিজ্যিক ভাবে চাষকৃত বিশাল লেবু বাগান ঘন সবুজের সমারুহে ময়না দ্বীপ যেন সৌন্দর্যের পসরা সাজিয়ে বসে আছে। জানা যায়, ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন কর্মী ময়না মিয়া এখানে বাস করতেন এবং একানে চাষ আবাদ করতেন। অবসরে তিনি এই দ্বীপে গাছের তলায় বসে বাঁশি বাজিয়ে সময় কাটাতেন। বাঁশির সুমধুর সুর শুনে অনেকেই ময়না মিয়ার সাথে দেখা করতে আসলে সবার মাঝে ব্রিটিশদের তাড়ানোর মন্ত্র দিতেন তিনি। এরপর লোকমুখে ধীরে ধীরে এ চরের নাম হয়ে যায় ময়না দ্বীপ। আবার একসময় এই দ্বীপ চর ছিল পাখিদের অভয়ারণ্য। প্রচুর ময়না পাখির বসবাস ছিল এই দ্বীপে সে থেকেই এই দ্বীপের নামকরন করা হয় ময়না দ্বীপ।

সবুজে ঘেরা কোলাহল মুক্ত প্রাকৃতিক পরিবেশে সময় কাটাতে অনেকেই আসে ময়না দ্বীপে। এখানে সারিসারি নৌকা, হাজার হাজার বুনো হাঁসের ঝাঁক ও পানকৌড়ি বা চিলের মতো বিভিন্ন শিকারি পাখিদের প্রাচূর্য আপনার নজর কারবর। এছাড়া এখানে  আসলে চোখে পড়ে নদী কেন্দ্রিক মানুষের জীবনধারা। আবার ফেরার পথে সূর্যাস্তের চমৎকার দৃশ্য আপনাকে বিমোহিত করবে। তাই শহোরে যান্ত্রিক কোলাহল থেকে দূরে কোথায় নিরিবিলিতে সময় কাটানোর জন্য ভ্রমণ পিপাসুরা ছুটে আসেন ময়না দ্বীপে। বর্তমানে এই স্থানটি পিকনিক স্পট হিসেবে অনেক জনপ্রিয় হয়ে উথেছে সকলের কাছে।

কি ভাবে যাবেন ময়না দ্বীপ

ঢাকা মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে এনা, সৌখিন,আলম এশিয়া, শামীম এন্টারপ্রাইজ, শ্যামলী বাংলা, ইমাম ইত্যাদি বিভিন্ন  পরিবহনের বাসে করে ২৬০ টাকা ভাড়ায় ময়মনসিংহ যেতে পারবেন। ঢাকা থেকে ময়মনসিংহ যেতে তিন থেকে সারেতিন ঘণ্টা সময় লাগে।

ঢাকা থেকে ট্রেনে ময়মনসিংহ ভ্রমণ করতে পারবেন। ঢাকা টু ময়মসিংহ রোডে চলাচল রত ট্রেনের মধ্যে

ঢাকা-ময়মনসিংহ ট্রেন সময়সূচি (আন্তঃনগর ট্রেন)

তিস্তা এক্সপ্রেস (৭০৭)ছাড়ার সময় সকাল ০৭:২০ পৌছানোর সময় সকাল ১০:৩৫ (সোমবার বন্ধ)

ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস (৭৪৩)ছাড়ার সময় সন্ধ্যে ০৬:০০ পৌছানোর সময় রাত ০৯:৩০ (বন্ধ নেই) 

যমুনা এক্সপ্রেস (৭৪৫) ছাড়ার সময় বিকেল ০৪:৪০ পৌছানোর সময় রাত ০৮:০০ (বন্ধ নেই)

হাওর এক্সপ্রেস (৭৭৭)ছাড়ার সময় রাত ১১:৫০ পৌছানোর সময় রাত ০৩:৫০ (বৃহঃবার বন্ধ)

অগ্নিবীণা এক্সপ্রেস (৭৩৫)ছাড়ার সময় সকাল ০৯:৪০ পৌছানোর সময় দুপুর ১২:৩৭ (বন্ধ নেই)

মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস (৭৮৯)ছাড়ার সময় দুপুর ০২:২০ পৌছানোর সময় রাত ০৮:১০ (সোমবার বন্ধ)

ঢাকা-ময়মনসিংহ ট্রেন সময়সূচি (মেইল ট্রেন)

দেওয়ানগঞ্জ কমিউটার (৪৮)ছাড়ার সময় ভোর ০৫:৪০ পৌছানোর সময় সকাল ১১:৪৫ (বন্ধ নেই) 

জামালপুর কমিউটার (৫২)ছাড়ার সময় বিকেল ০৩:৪০ পৌছানোর সময় সন্ধ্যে ০৬:১৫ (বন্ধ নেই) 

ঈশা খাঁ এক্সপ্রেস (৪৮)ছাড়ার সময় সকাল ১১:৩০ পৌছানোর সময় রাত ০৯:৪৫ (বন্ধ নেই) 

মহুয়া এক্সপ্রেস (৪৪)ছাড়ার সময় সকাল ০৮:১০ পৌছানোর সময় দুপুর ০২:৫০ (বন্ধ নেই) 

ভাওয়াল এক্সপ্রেস (৬৫)ছাড়ার সময় রাত ০৯:০০ পৌছানোর সময় ভোর ০৫:৪০ (বন্ধ নেই) 

ময়মনসিংহ রেলওয়ে ষ্টেশন বা বাস স্টপ থেকে রিকশা বা অটো দিয়ে সহজেই বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শেষ মোড়ে এসে স্থানীয় যেকাউকে জিজ্ঞাসা করলে ময়না দ্বীপ দেখিয়ে দিবে।

এছাড়া আপনি যদি এডভেঞ্চার প্রেমী তাহলে ময়মনসিংহ শহরের শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন পার্ক, কাচারি ঘাট বা থানার ঘাটের সামনে থেকে ইঞ্জিন চালিত নৌকা নিয়ে ময়না দ্বীপে যেতে পারেন। সারাদিনের জন্য দেড় থেকে দুই হাজার টাকায় নৌকা ভাড়া করে গুড়ে আস্তে পারবেন।

কোথায় থাকবেন

ঢাকা থেকে আপনি চাইলে দিনে গিয়ে দিনেই ময়মনসিংহ ঘুরে ফিরে আসতে পারবেন। রাত্রিযাপন করতে চাইলে এখানে রয়েছে বিভিন্ন মানের হোটেল।ময়মনসিংহে অবস্থিত হোটেল গুলোর মধ্যে আমির ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল আল হেরা, হোটেল মোস্তাফিজ, সিলভার ক্যাসেল, রিভার প্যালেসে অন্যতম।

ময়মনসিংহের আবাসিক হোটেল সমূহ 

আমির ইন্টারন্যাশনাল – ৪৬, ৪৬/এ ষ্টেশন রোড, ময়মনসিংহ। ০৯১-৫১৫০০, ০৯১-৬৩৩৭৬ ০১৭১১১৬৭৯৪৮ 

মোস্তাফিজ ইন্টারন্যাশনাল – ৬/বি গঙ্গাদাস গুহরোড, ফায়ার সার্ভিসের পশ্চিম পাশে, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০৯১-৬৩যোগাযোগ ৮৭০, ০৯১-৬৩৮৭১ 

হোটেল হেরা ট্রেড সেন্টার – ৩৬/বি টাঙ্কপট্টি, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০১৫৫২৪৭০৭০০

খাঁন ইন্টারন্যাশনাল হোটেল – ৩৩/এ মহারাজা রোড, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০৯১-৬৫৯৯৫, ০১৭১৫-২৮১৬৭৮

নিরালা রেষ্ট হাউজ – ৬৭ ছোট বাজার, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০৯১-৫৪২৮৫

ঈশা খাঁ হোটেল – গাঙ্গিনারপাড়, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০১৭২১-১৪৪৯৭৬

হোটেল উত্তরা – গাঙ্গিনারপাড়, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০৯১-৬৪১৮৫, ০১৭১১-৫৭৭৭০৭

রিভার প্যালেস – ৩৩৮ তালতলা ডোলাদিয়া, খাগডহর, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০৯১-৬৬১৫০, ০৯১-৬৬১৫১, ০১৭১০৮৫৭০৫৪,

তাজমহল – ষ্টেশন রোড, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০১৭১৭১৭১৩৩৪

বনানী আবাসিক হোটেল – ২৭/এ ছোট বাজার, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০১৭২৭-৮০৮৬৪৫, ০১৯১২-৭৫৭৩৯১

হিলটন হোটেল – ৩১৯ চরপাড়া, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০১৭১০৩৬৮৫০৯

হোটেল নাইট ষ্টার – ১৩/এ পুরোহিত পাড়া, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০১৭১১৯৩১৮৩৫, ০১১৯১৩৩০১৭২

হোটেল অবকাশ – এবি গুহ রোড, ময়মনসিংহ। ফোনঃ ৫৩৮৫৯

নিউ জাহাঙ্গীর গেষ্ট হাউজ – ৬২ রামবাবু রোড, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০১১৯০২৭৬০২৭

ঝর্ণা রেষ্ট হাউজ – ১৪ যাদব লাহিড়ী রোড, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০১৫৫৮৩০১৯৪৮

তরুন বোর্ডিং – ২৭ দূর্গাবাড়ী রোড, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০১৭২৪৯০২৪৯৫

নিদমহল রেষ্ট হাউজ – ৮ দূর্গাবাড়ী রোড, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০১৭৩৫২১৪৪৭০

দি মোমেনশাহী বোর্ডিং – ১৯৮/এ কালীবাড়ী রোড, ময়মনসিংহ। যোগাযোগ ০১৭১১৪৭৯৮৯০

কোথায় খাবেন

ময়মনসিংহে রয়েছে বিভিন্ন মানের খাবারে হোটেল ও রেস্টুরেন্ট। ময়মনসিংহের উল্লেখযোগ্য  হোটেল গুলুর মধ্যে সারিন্দা, হোটেল খন্দকার, ধান সিড়ি, সেভেন ইলেবেন, হোটেল মিনার, রোম থ্রি এবং ময়মনসিংহ প্রেস ক্লাব কেন্টিন অন্যনত।

 


পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন
error: Content is protected !!